চীনে পড়াশোনার খরচ

0
184
চীনে পড়াশোনার খরচ
চীনে পড়াশোনার খরচ

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা। আপনারা সবাই কেমন আছেন? আশা করি ভালই আছেন। আপনারা আমাদের অনেকে কমেন্ট করেছেন যে ভাইয়া চীনে স্কলারশিপ ছাড়া নিজে খরচ করলে পড়াশুনার জন্য কত টাকা খরচ হবে? আজকে আলোচনা করবো যে চীনে পড়াশোনার খরচ সম্পর্কে। চলুন কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক-

বর্তমান বিশ্বের চীন সবচেয়ে প্রভাবশালী অর্থনীতির দেশ। একবিংশ শতাব্দীর বিশ্বকে তারাই নেতৃত্ব দিবে। আফ্রিকা থেকে শুরু করে ভারত উপমহাদেশ, আমেরিকা থেকে ইউরোপ সব দেশেই চীনা পণ্যের দাপুটে অবস্থান। ইদানীং কালে চীন তাদের শিক্ষা ব্যবস্থার উপর ব্যাপক জোর দিয়েছে।

ওয়ার্ল্ড রাঙ্কিং এ চীনের বেশ কয়েকটি ইউনিভার্সিটি স্থান দখল করে আছে। সারা বিশ্ব থেকেই এখন চীনে প্রচুর স্টুডেন্ট পড়তে আসছে। এর পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ হল চীনা সরকার বিদেশী স্টুডেন্টদেরকে চীন দেশে পড়াশোনার জন্য স্কলারশিপ দিচ্ছে। স্কলারশিপ এর কারনে অনেক কম খরচে পড়াশোনা করতে পারে।

এখন কথা হলো ভাইয়া আমি তো স্কলারশিপ পাইনি। কিন্তু আমি চীনে গিয়ে নিজ অর্থায়নে পড়তে চাই। সেক্ষেত্রে আমার খরচ কেমন হবে। আজকে এই সম্পর্কে সব বিষয় একদম পরিস্কার করে জানানো হবে। চলুন আজকে আমরা বিস্তারিত জানবো চীনে পড়াশোনার খরচ সম্পর্কে।

চীনে পড়াশোনার খরচ –

চীনের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়তে গেলে সবচেয়ে বেশি খরচ হয় যে জায়গায় সেটা হল টিউশন ফি। চীনে যে টিউশন ফি যেটা বাৎসরিক একটা টাকা জমা দিতে হয় সেই ফি টা সব চেয়ে বেশী। বিভিন্ন ভার্সিটিতে এই টিউশন ফি বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে।

তবে মোটামুটি একটা ভার্সিটিতে আপনি পড়তে চাইলে আপনাকে গড়ে ২৫০০০-৩০০০০ হাজার আরএমবি টিউশন ফি হিসেবে জমা দিতে হবে। যেটা বাংলাদেশি মুল্য ২৫০০০০-৩০০০০০ (আড়াই থেকে তিন লক্ষ) টাকা। এটা আপনার এক বছরের টিউশন ফি। প্রথম বছরেই আপনার সবচেয়ে বেশি খরচ হবে। তাহলে প্রথমে প্রথম বছরের খরচের হিসাব করি।

আপনি যদি চীনে মোটামুটি একটা ভাল বিশ্ববিদ্যালয় এ পড়তে চান তাহলে আপনাকে টিউশন ফি দিতে হবে প্রায় তিন লক্ষ টাকা। প্রথম বছরে আসার সময় এয়ারটিকেটের খরচ হবে প্রায় পঞ্চাশ হাজার টাকা। চীনে আসার পরে থাকতে গেলে আপনার বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে হবে।

থাকার সব কিছু মিলিয়ে ধরেন দশ হাজার টাকা। আপনি যদি বাসার মধ্যে নিজে রান্না করে খান তাহলে খরচ হবে ধরেন দশ হাজার টাকা। তাছাড়াও রেসিদডেন্ট পারমিটের ফি টা মিলে যদি ধরা যায় তাহলে প্রথম বছরে আপনার সর্বোচ্চ ৪০০০০০(চার)লক্ষ টাকা লাগবে।

এছাড়া অনেকে পার্শিয়াল স্কলারশিপ পেয়ে থাকে, অনেক জায়গায় স্কিম পেয়ে থাকে আরো অনেক জায়গায় ছাড় পেয়ে থাকে সে ক্ষেত্রে তার চার লক্ষ টাকার কম হলেও হবে। কিন্তু কোন রকম স্কলারশিপ ছাড়া বা কোন সুযোগ সুবিধা ছাড়া আপনি চীনে পড়াশোনা করতে চাইলে আপনার সর্বোচ্চ চার লক্ষ টাকা লাগবে।

এক্ষেত্রে আপনার কোন এজেন্সির সাহায্য নিতে হবে না। আপনি এই খরচ দিয়ে নিজেই চীনে এসে প্রথম বছর পড়াশুনা করতে পারবেন। প্রথমেই বলেছিলাম চীনে প্রথম বছর অনেক টাকা খরচ হলেও পরের বছর বা পরের সেমিস্টার এ আপনার অনেক গুলো সুযোগ থাকবে স্কলারশিপ পাওয়ার।

ইউনিভার্সিটিস স্কলারশিপ-

এক্ষেত্রে বিভিন্ন ইউনিভার্সিটিতে নিজস্ব স্কলারশিপ দিয়ে থাকে। ইউনিভার্সিটিগুলো বিভিন্ন ছাড় দিয়ে থাকে। এখানে আপনি এল্পাই করে আপনার খরচ কমিয়ে আনতে পারেন।

তো আপনার নিজস্ব টাকায় পড়াশোনা করতে হলে কোন রকম স্কলারশিপ ছাড়া আপনাকে তিন থেকে চার লক্ষ টাকা যোগার করতে হবে। কেননা পরের বছর থেকে আপনার বিভিন্ন উপায় আছে স্কলারশিপ পাওয়ার। আমি পরের বছর গুলো ধরবো না কিন্তু আমিও মোটামুটি নিশ্চিত যে আপনি পরের বছর কোন না কোন স্কলারশিপ পাবেন।

বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে যারা চীনে বিভিন্ন ভালো ভালো ইউনিভার্সিটিতে পড়তেছে তারা কোন না কোন স্কলারশিপ পেয়েছে। তো পুরো ব্যাচেলর ভা ডিগ্রির কথা বলি তাহলে পুরো কোর্সের জন্য যদি বলি তাহলে স্কলারশিপ এর কথা মাথায় রাখতে হবে।

আর আপনি অবশ্যই সেই কোন না কোন স্কলারশিপ পাবেন। পুরো কোর্সের কথা আমি বলবো না কারন আপনি কোন না কোন স্কলারশিপ পাবেনই।

চীনে পড়াশোনার খরচ

তো কেউ যদি বলেন যে শুধুমাত্র আমার নিজের টাকায় পড়াশোনা করবো চীনে তাহলে আমি বললো যে মোটামুটি এক বছরের যে টাকা সেটা খরচ করে আপনি চীনে আসতে পারেন। এখানে এসে আপনি নিজের জন্য যে টাকা লাগে সেটা আপনি নিজেও আয় করতে পারবেন।

তাছাড়া স্কলারশিপ তো আছেই। আর কিভাবে চীনে টাকা উপার্জন করবেন সেটা সম্পর্কেও আমি আলোচনা করেছি। চাইলে সেখান থেকে আপনি দেখে নিতে পারেন কিভাবে চীনে শিক্ষার্থী অবস্থায় উপার্জন করতে পারবেন

যারা কোন স্কলারশিপ পেল না কিন্তু তারা চীনে গিয়ে পড়াশুনা করতে চায় আমি তাদের বলবো যে আপনি মোটা মুটি প্রায় চার লক্ষ টাকা খরচ করে চীনে আসুন। আর পরবর্তী বছরগুলোতে টার্গেট রাখবেন যেন স্কলারশিপ পাওয়া যায়। আর আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি যে আপনি স্করশিপ পাবেন বা বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পাবেন।

তো আজকে এই ছিল ছোট্ট একটু আলোচনা। কেননা এই প্রশ্ন সব থেকে বেশি পাওয়া যায় যে ভাইয়া কত টাকা লাগবে চীনে গিয়ে নিজ অর্থায়নে পড়াশুনা করতে। আর আশা করি আপনারা আপনাদের প্রশ্নের উত্তর পেয়েছেন।

কেমন লাগলো আজকের আলোচনা তা কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

আপনি আরো পড়তে পারেন চীনে ছাত্র অবস্থায় উপার্জন করার উপায়ধন্যবাদ