নেদারল্যান্ডসে উচ্চ শিক্ষা সম্পর্কে

0
197
নেদারল্যান্ডে উচ্চ শিক্ষা সম্পর্কে
নেদারল্যান্ডে উচ্চ শিক্ষা সম্পর্কে

আসসালামু আলাইকুম। বন্ধুরা আপনারা সবাই কেমন আছেন? আশা করি আপনারা সবাই ভাল আছেন। আপনি কি আপনার ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবছেন? আপনারা নেদারল্যান্ডে উচ্চ শিক্ষা নিতে চাচ্ছেন? বন্ধুরা তাহলে এই তথ্য গুলো সম্পর্কে ভালভাবে জেনে নিন আর সেগুলো সঠিক ভাবে প্রয়োগ করে নেদারল্যান্ডসে চলে যান উচ্চ শিক্ষা এর জন্য।

বিদেশে উচ্চ শিক্ষা কেবল জ্ঞানার্জন নয়। এটা ব্যক্তিগত জীবনের জন্য ভাল একটা অভিজ্ঞতা। বাংলাদেশের অনেক শিক্ষার্থী বিদেশে উচ্চ শিক্ষা নিতে আগ্রহী। নেদারল্যান্ডে উন্নত শিক্ষা ব্যবস্থার মান এবং ভবিষ্যৎ কর্ম ক্ষেত্রের জন্য বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য এই দেশ এর মতো আর ভাল গন্তব্য স্থান হতে পারে না। সেগুলো সম্পর্কে আজ কে আমি আপনাদের বিস্তারিত জানাবো। বন্ধুরা আজ আমি আলোচনা করবো নেদারল্যান্ডসে উচ্চ শিক্ষা সম্পর্কে।

নেদারল্যান্ডস উত্তর পশ্চিম ইউরোপের একটি দেশ। যার আরোও একটি নাম রয়েছে সেটি হল হল্যান্ড। এই নেদারল্যান্ডসের রাজধানী হচ্ছে আমর্স্টম। আর নেদারল্যান্ডসের জাতীয় ভাষা হচ্ছে ডার্চ। এদেশের বেশির ভাগ নাগরিক ইংরেজি ভাষায় কথা বলে এবং অন্যদের সাথে যোগাযাগ করে থাকে। এদেশের মুদ্রার নাম হচ্ছে ইউরো। এই নেদারল্যান্ডস ইউরোপের স্টেনজেন ভিত্তিক দেশ।

তবে এ দেশটি বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আপনি স্নাতক, masters, PhD, premasters, diploma যে বিষয়ে পড়তে চান না কেন নেদারল্যান্ড সব বিষয়ে অফার করে থাকে। সাধারনত ব্যচেলর কোর্স ৩-৪ বছর মেয়াদী, masters কোর্স ১-২ বছর মেয়াদী এবং PhD কোর্স গুলো ৩-৫ বছর মেয়াদী হয়ে থাকে।

নেদারল্যান্ডসে উচ্চ শিক্ষা এর জন্য সুযোগ সুবিধঃ

এখানে প্রথমত ইংরেজি কোর্স। ডার্চ বিশ্ববিদ্যালয় গুলো ইউরোপ মহাদেশের মধ্যে সব থেকে বেশি ভাগ ইংরেজি কোর্স অফার করে থাকে। যা প্রায় ৮০ টির বেশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ২০০০ হাজারের বেশি ইংরেজি প্রগ্রাম রয়েছে। নেদারল্যান্ডসে অনেক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে যারা বিশ্ব রেঙ্কিঙ্গয়ে অনেক বেশী এগিয়ে রয়েছে। এদেশে সব থেকে বড় দুইটি সুবিধা রয়েছে তা হল-

প্রথমতঃ আপনি অল্প IELTS নিয়ে আবেদন করতে পারবেন। আপনি যদি সচরাচর IELTS ৬ পেয়ে থাকেন তাহলে সরাসরি অনার্স, ৬.৫ থাকলে masters এবং ৭ থাকলে PhD কোর্সের জন্য সরাসরি আবেদন করতে পারবেন। আপনার IELTS স্কোর যদি ৫.৫ বা ৫ থাকে তাহলে ৬ মাস অথবা ১ বছরে premasters অথবা প্রিপেটরী কোর্স করেও admission পেতে পারেন।

দ্বিতীয়তঃ যে সুবিধাটি হচ্ছে আপনি যদি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে admission হয়ে যান আর কাগজ পত্রে কোন সমস্যা না থাকলে খুব সহজেই ভিসা পেয়ে যাবেন। তার কারন আপনি যে বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পেয়েছেন সেই বিশ্ববিদ্যালয় আপনার জন্য ভিসা আবেদন করবে। এরপর আপনাকে শুধু embassy তে গিয়ে পাসপোর্ট জমা দিতে হবে। এটা আপনার জন্য একটা সহজ ভিসা সিস্টেম এক্ষেত্রে যারা স্পাউস নিয়ে আবেদন করতে চান বা স্বামী, স্ত্রী এবং ছোট বাচ্চা নিয়ে আবেদন করতে চান সেক্ষেত্রে নেদারল্যান্ড বা এই দেশের সরকার আপনাদের কে সে সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকবে। অর্থ্যাৎ স্পাউস ভিসা নিয়ে নেদারল্যান্ডে এক সাথে ফ্লাই করতে পারবেন।

নেদারল্যান্ডসে উচ্চ শিক্ষা এর জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টঃ

১। সকল একাডেমিক সার্টিফিকেট ও মার্কশীট
২। IELTS সার্টিফিকেট
৩। জন্ম সনদ ( অবশ্যই ইংরেজিতে হতে হবে )
৪। ব্যাংক স্পন্সর লেটার
৫। পুলিশ ক্লিয়ারেন্স লেটার
৬। মেডিকেল সার্টিফিকেট
৭। রিকমেন্ডশন লেটার দুইটি
৮। মোটিভেশনাল লেটার

নেদারল্যান্ডসের বিশ্ববিদ্যালয় গুলো অনেক উন্নত মানের এদেশের ডিগ্রী হচ্ছে সার্বজনীন। অন্যান্য ইউরোপীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় এখানে পড়াশুনা সুইডেন বা ডেনমার্কের মত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ১০-১২ লক্ষ টাকা নিয়ে যাচ্ছে। আর আপনি এর থেকে কম খরচে নেদারল্যান্ডসে উচ্চ শিক্ষা নিতে পারবেন। অন্যদিকে সুইডেন ও ডেনমার্কে স্কলারশিপের পরিমান কম আর এখানে স্কলারশিপের পরিমানটা অনেক বেশি।

নেদারল্যান্ডসে প্রতি বছর অনেক বিদেশী শিক্ষার্থী আসে উচ্চ শিক্ষা নেওয়ার জন্য। এই নেদারল্যান্ডস সমাজ ব্যবস্থা অন্যান্য দেশের সাংস্কৃতি ব্যবসায়িক সম্প্রদায় এবং বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে চায়। যেহেতু বিভিন্ন দেশ থেকে এই দেশে পড়াশুনা করতে আসে সেহেতু নানা রকম মানুষের সাথে পরিচিত হওয়ার সুযোগ ও থাকে। এর ফলে অন্যান্য দেশের সংস্কৃতি ও নিয়ম নীতি সমন্ধে জানা যায়

এছাড়া নেদারল্যান্ডসের মানুষ হচ্ছে খোলা মনের অধিকারী। তাই তাদের সাথে মিলামিশা অনেকাংশে সহজ হয়ে যায়। উচ্চ শিক্ষার মান সম্পর্কে নেদারল্যান্ডস বিশ্বে অনেক এগিয়ে আছে। এই নেদারল্যান্ডের শিক্ষা হচ্ছে গবেষনা কেন্দ্রিক। এদেশে আপনি সব কিছু হাতে কলমে শিখতে পারবেন। জীবনে সফল হতে গেলে যা যা প্রয়োজন এখানে আপনি উচ্চ শিক্ষা অর্জন করলে এলে তার সব কিছুই পেয়ে যাবেন।

নেদারল্যান্ডস নিরাপদ ও সুখি দেশঃ

গ্লোবাল পিস ইন্ডেক্স অনুযায়ি নেদারল্যান্ড বিশ্বের সব থেকে নিরাপদ দেশের অধিকারী। এই নেদারল্যান্ডস ১০টি সুখি দেশের মধ্যে অন্যতম একটি। নেদারল্যান্ডস সর্বনিম্ন অপরাধ হারের জন্য খুবই জনপ্রিয়। এই নেদারল্যান্ডসে সম্প্রতি তিনটি কারাগার বন্ধ হয়ে গেছে। কেননা এখানে অপরাধ নেই বলে কারাগারে কোন বন্ধি কয়েদী নেই। যার কারনে এই কারাগার গুলো বন্ধ হয়েছে। এই নেদারল্যান্ডস ইউরোপের একদম গ্রেটে।

এই নেদারল্যান্ডস এমন একটি স্থানে যেখান থেকে ইউরোপের অন্যান্য দেশে খুব কম সময়ে যাওয়া আসা করা যায়। মাত্র ৩ ঘন্টাতে আপনি যেতে পারবেন প্যারিসে এবং ৫ ঘন্টায় যেতে পারবেন লন্ডনে, ৬ ঘন্টায় চলে যেতে পারেন বারর্লিনে বা এর আশে পাশের দেশ গুলোতে। এই জন্য নেদারল্যান্ড কে ইউরোপের গেট বলা হয়ে থাকে। এখন আমরা আলোচনা করবো কাজের সুযোগ আছে কি না।

নেদারল্যান্ডসে কাজের সু্যোগঃ

এই নেদারল্যান্ড বিশ্বের ১৮ তম অর্থনৈতিক সমৃদ্ধশালি দেশ। বিভিন্ন উন্নত মানের কোম্পানি রয়েছে যেমন, ফিলিপস, সেল, ইউনিলিভার এই সব হচ্ছে নেদারল্যান্ডের বড় ধরনের কোম্পানি। নেদারল্যান্ডসে কৃষি, পানি ব্যবস্থাপনা, শিল্প কলকারখানা,আরো অন্যান্য ডেভলপ প্রজেক্ট সহ টেকনোলোজিক্যাল বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা সারা বিশ্বে প্রতিনিধিত্ব করে থাকে। নেদারল্যান্ডসে ক্যারিয়ার গডার অনেক সু্যোগ রয়েছে। অনেক ক্যারিয়ারের মধ্যে আপনি আপনার পছন্দের ক্যারিয়ার বেছে নিতে পারেন। তারপরও অনেকে ভাবছেন নেদারল্যান্ডে কি পড়াশুনা শেষ করে কি ক্যারিয়ার গড়া যাবে?

আমি বলবো হ্যা, অবশ্যই যাবে। তার কারন নেদারল্যান্ডস সরকার ভাল শিক্ষার্থীদের তাদের দেশে ধরে রাখতে চায়। অন্যান্য দেশে যেমন নরওয়েতে আপনি যে বিষয়ে পড়াশুনা করবেন। আপনাকে সেই বিষয়ে ক্যারিয়ার গড়ে নিতে হবে। তবে নেদারল্যান্ডে সেই নিয়ম টি নেই। আপনি এই দেশে যে বিষয়ে অনার্স বা মাস্টার্স শেষ করেন না কেন চাকুরী খোজার জন্য এক বছর সময় পাবেন। আর আপনি চাইলে নেদারল্যান্ডসে উচ্চ শিক্ষা শেষ করে তিন বছরের মধ্যে ব্যবস্যা শুরু করতে পারবেন। তার কারন নেদারল্যান্ড সরকার আপনাকে স্টাবিলিশড হওয়ার সু্যোগ করে দেবে।

আজ এই পর্যন্ত বন্ধুরা। এই জন্য নেদারল্যান্ডে অনেকে আসে উচ্চ শিক্ষা নেওয়ার জন্য। তার কারন নেদারল্যান্ড এ উচ্চ শিক্ষা শেষ করে নিজের ক্যারিয়ার গঠন করা যায়। তো বন্ধুরা এই ছিল আমার কাছে নেদারল্যান্ডসের উচ্চশিক্ষা সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত কিছু আলোচনা। যদি আপনাদের কোন উপকার হয়ে থাকে তাহলে আপনারা এই সুযোগ টি কাজে লাগান। আর অবশ্যই উচ্চ শিক্ষার জন্য আবেদন করবেন। আপনাদের মতামত কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

আরো পড়তে পারেন সৌদি আরবের ফ্রি স্কলারশিপ। ধন্যবাদ।