ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চ শিক্ষা

0
223
ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চ শিক্ষা টিউশন ফি

ইংল্যান্ড উচ্চশিক্ষার জন্য খুবই ভাল একটি দেশ। এছাড়া ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়েও উচ্চশিক্ষা অর্জন করা যায়। আপনি যদি ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চশিক্ষা অর্জন করতে চান তাহলে আপনাকে ইংল্যান্ডে টিউশন ফি নিয়ে অবগত থাকতে হবে। আজনে আমরা আলোচনা করবো ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে কিভাবে উচ্চশিক্ষা লাভ করা যায়।

উচ্চশিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডে টিউশন ফি কেমন? স্কলারশিইপের সুবিধা ইংল্যান্ডে কি রকম দিয়ে থাকে? সে সব বিষয় আমাদের জানা খুবই জরুরী। আমাদের অনেকেরই স্বপ্ন থাকে বিদেশ থেকে উচ্চশিক্ষা গ্রহন করার। কিন্তু আমাদের যোগ্যতা থাকা স্বত্বেও সঠিক দিক নির্দেশনার অভাবে আমাদের স্বপ্ন, স্বপ্নই থেকে যায়। স্কলারশিপ নিয়ে বিদেশে উচ্চ শিক্ষার কথা শুনলে প্রথমে আমাদের মাথায় যে বিষয়টি ঘোরপাক খায় সেটি হল নিজের সাধ্যের মধ্যে দেশ নির্বাচন করে, উচ্চ শিক্ষা লাভ করা। আরো একটি বিষয় সেটি হল সঠিক দিক নির্দেশনা। ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে অথবা নিজ অর্থায়নে উচ্চশিক্ষা অর্জন করতে হলে যে বিষয় গুলো জানতে হবে-

ইংল্যান্ডে উচ্চশিক্ষা প্রদানকারী বিশ্ববিদ্যালয়

এই দেশে অসংখ্য মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকার কারনে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের প্রথম পছন্দ। এই দেশে রয়েছে পৃথিবীর সব থেকে নামি দামি বিশ্ববিদ্যালয় গুলো যেমন, কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় এবং অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চ শিক্ষা গ্রহনে এই সব শিক্ষার্থীদের অবশ্যই নিয়ম কানুন ভাল ভাবে জেনে নেওয়া উচিত।

ইংল্যান্ডে কিছু স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা রয়েছে যেমন, বেদফোর্ডশায়ার বিশ্ববিদ্যালয়, ডন্ডি বিশ্ববিদ্যালয়, ব্যাঙ্গর বিশ্ববিদ্যালয়, ওয়েস্ট স্কটল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থামব্রিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি রয়েছে। এখন আলোচনা করবো ইংল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের উচ্চশিক্ষার পদ্ধতি নিয়ে

ইংল্যান্ডে উচ্চশিক্ষা গ্রহনে IELTS স্কোর কত লাগে

ব্রিটিশ বা ইংল্যান্ডে উচ্চশিক্ষা অর্জনে আগ্রহী শিক্ষার্থীদের প্রথমে ব্রিটিশ কাউন্সিলরের কাছে যোগাযোগ করতে হয়। ইংল্যান্ডে পড়াশুনার ক্ষেত্রে ব্রিটিশ কাউন্সিলর একটা তথ্য ভান্ডার হিসাবে কাজ করে। এই ব্রিটিশ কাউন্সিলর শিক্ষার্থীদের ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ , কোর্স গুলো ও প্রয়োজনীয় যোগ্যতা সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে থাকে। ইংল্যান্ডে উচ্চশিক্ষা গ্রহন করতে হলে আইইএলটিএস স্কোর ৭ (IELTS SCORE) থাকতে হবে। এরপর আপনাকে ইংল্যান্ডের ভর্তি ফি সম্পর্কে জানতে হবে।

উচ্চশিক্ষা অর্জনে ইংল্যান্ডে টিউশন ফি কত

ইংল্যান্ডে টিউশন ফি – বিশ্ববিদ্যালয় হিসাবে পরিবর্তিত হয়ে থাকে। জরিপ অনুযায়ী এই দেশের উচু মানের বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে উচ্চশিক্ষার জন্য ফাউন্ডেশন কোর্স প্রতি বছর ৪০০০-১২০০০ হাজার পাউন্ড, কলা বিভাগে টিউশন ফি প্রতি বছর ৭০০০-৯০০০ হাজার পাউন্ড, বিজ্ঞান বিভাগে টিউশন ফি প্রতি বছর ৭৫০০-১২০০০ হাজার পাউন্ড, ক্লিনিকেল বিভাগে টিউশন ফি প্রতি বছর ১০০০০-২১০০০ হাজার পাউন্ড এবং এমপি এর প্রগ্রামে টিউশন ফি প্রতি বছর ৪০০০-৩০০০০ হাজার পাউন্ড খরচ হতে পারে। এবার আলোচনা করা যাক স্কলারশিপ নিয়ে।

ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চ শিক্ষা টিউশন ফি

উচ্চশিক্ষায় ইংল্যান্ডের স্কলারশিপ নিয়ে যেসব বিষয় পড়াশোনা করতে পারবেন

ইংল্যান্ডের স্কলারশিপ সুবিধা – ইংল্যান্ডে প্রতি বছর অনেক শিক্ষার্থী আসে এদেশে উচ্চ শিক্ষা গ্রহন করার জন্য। এদেশের সরকার সে দিক বিবেচনা করে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদেশ থেকে স্কলারশিপ নিয়ে আসা শিক্ষার্থীদের জন্য তাদের মেধা ও বিগত রেজাল্টের উপর নির্ভর করে তাদের টিউশন ফি মউকুফ সহ ও অন্যান্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করে থাকে। যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সু্যোগ রয়েছে সেই বিশ্ববিদ্যালয় বরাবর স্কলাশিপ এর জন্য আবেদন করতে হবে।

কোন কোন বিষয় ইংল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া যাবে স্কলারশিপ নিয়ে। যেসব বিষয়ে ইংল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া যাবে। যেমন, bachelor degree ,masters degree, MBA, doctorate degree, farmer সহ diploma, কারিগরি কোর্স। সার্টিফিকেট এবং diploma কোর্স যেমন, post graduate diploma, PGD, post graduate certificate ইত্যাদি।

উচ্চশিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডের ভিসার আবেদনে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

ইংল্যান্ডে উচ্চশিক্ষা অর্জনে ও স্কলারশিপ নিয়ে কোন কোন বিষয়ে পড়া যায় তা জানলাম। এখন আলোচনা করবো স্ট্যাডি পারমিটের জন্য আবেদন কিভাবে করে। ইংল্যান্ডে স্ট্যাডি ভিসা নামে কোন ভিসা নেই। মূলত স্ট্যাডি পারমিট ভিসা দেওয়া হয়ে থাকে। আর এটাকে স্টুডেন্টস ভিসা বলা হয়ে থাকে। এই স্ট্যাডি পারমিট ভিসা দিয়ে এই দেশে বাস করতে পারবেন না। এই দেশে ভ্রমন ও বসবাসের জন্য আপনাকে টেম্পোয়ারী রেসিডেন্স ভিসা অথবা ইলেক্টনিক্সস ট্যাভেল ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। আর আবেদনের জন্য আপনাকে যা যা কাগজপত্র সংযুক্ত করতে হবে।

স্ট্যাডি পারমিটের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১। ইংল্যান্ড সরকার কতৃক অনুমোদিত বিশ্ববিদ্যালয়ের অফার লেটার।
২। ইংল্যান্ডে আপনার থাকা খাওয়ার পড়ার খরচের জন্য পর্যাপ্ত টাকা আছে তার প্রমান পত্র দেখাতে হবে।
৩। আপনি কোন প্রকার সন্ত্রাস মূলক কাজে জড়িত নেই তার প্রমানপত্র।
৪। আপনি শারীরক ভাবে সুস্থ তার প্রমানপত্র হিসাবে মেডিকেল রিপোর্ট দেখাতে হবে।
৫। ইংল্যান্ডে থাকাকালিন কোন প্রকার সন্ত্রাস মূলক কাজে জড়িত হবেন না তার অঙ্গিকার নামা।
৬। ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ পেলে থাকাকালিন আপনার খরচ চালানোর জন্য পর্যাপ্ত টাকা আছে কি না তার প্রমান পত্র হিসাবে যুক্ত করুন নিচের বিষয় গুলো।
ক) এই দেশে আপনার নামে ব্যাংক একাউন্ট।
খ) ব্যাংক স্টেটম্যান।
গ) ব্যাংক ড্রাফট।
ঘ) এক বছরের পড়াশুনা ও থাকা খাওয়ার খরচ পরিশোধ হয়েছে তার প্রমানপত্র।
জ্ঞ) যে ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান আপনাকে আর্থিক সহায়তা দেবে সেই ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের প্রদান কৃত চিঠি।
চ) আপনি কোন স্কলারশিপ পেয়েছেন তার প্রমানপত্র।

ইংল্যান্ডে স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চশিক্ষা অর্জন করতে চাইলে এই সব বিষয় জানা জরুরী। চাইলে আপনি এই সু্যোগটি কাজে লাগাতে পারেন। আপনাদের জন্য রইলো শুভ কামনা। ধন্যবাদ।